Press "Enter" to skip to content

এক নবাবজাদা বলছি

দেশ ছেড়েছি প্রায় তিন দশক আগে। দেশ ছাড়ার আগে অনুরাগী, অনুসারী—সবাই বেশ বিমর্ষ। আমি নিজেও। দেখি, আমার দীর্ঘদিনের কমরেড শ্যামল বিশ্বাস বেশ উৎফুল্ল। শ্যামল আমার গ্রামের ছেলে। গ্রামের একমাত্র খ্রিষ্টান পরিবারের সদস্য শ্যামল। বাল্যকাল থেকে ছায়াসঙ্গী ছিল। নিজে ম্যাট্রিক পাস করতে পারেনি। বাল্যকাল থেকে বোহিমিয়ান সময়ের নিত্যসঙ্গী শ্যামল। একসময় আমাদের সমাজ পরিবর্তনের স্বপ্নের সহযাত্রী হয়ে উঠেছিল।

অহর্নিশ ভালোবাসার সতীর্থ শ্যামল হাতে হাত রেখে বিদায় জানিয়ে বলেছিল, আপনি বিদেশ যাচ্ছেন। দেশে তো আপনার কেউ নেই! আমাকে অনেক ডলার পাঠাবেন, আমি সাহেবজাদার মতো থাকব। শ্যামলকে আমার ডলার পাঠানো হয়নি। কিছুদিন পরই শ্যামল মারা গেছে ব্রেন স্ট্রোক করে। নবাবজাদা শব্দটি নিয়ে চলমান আলোচনার সময়ে শ্যামলকে মনে পড়ছে অনেকটা অপ্রাসঙ্গিকভাবেই।

সম্পূর্ণ খবরটি পড়তে এখানে ক্লি করুন

%d bloggers like this: