Press "Enter" to skip to content

ঠাকুরগাঁওয়ে সস্ত্রীকে ফিরিয়ে পেতে চেয়ারম্যানের কাছে অভিযোগ

ঠাকুরগাঁও প্রতিনিধিঃ
ঠাকুরগাঁওয়ে জামালপুর ইউনিয়ন রসুলপুর গ্রামের বিপুল কুমার রায় স্ত্রীকে ফিরিয়ে পেতে ১০নং জাবরহাট  চেয়ারম্যানের কাছে অভিযোগ করেছেন। অভিযোগে  বিপুল কুমার রায়, পিতা তিলক কুমার রায়, মাতা বিজলী রানী রায়, গ্রাম- রসুলপুর ডাকঘর শিবগঞ্জ. থানা জেলা ঠাকুরগাঁও। বিপুল কুমার রায় অভিযোগ করেন আমি ১০নং যাবর হাট  ৯নংওয়ার্ড,থানা-পীরগনজ জেলা ঠাকুরগাঁও।
আমি হিন্দু ধর্মীয় মতে দিনাজপুর জেলা ধীন কান্তজিউ মন্দিরে রিমা রানী রায়, পিতা- সোভারাম রায়  (সাবেক মেম্বার) মাতা- ভালো রানী রায় সাং দক্ষিণ মালঞ্চা ৯ নং ওয়ার্ড থানা- পীরগঞ্জ জেলা ঠাকুরগাঁও। আমি রিমা রানী রায় কে ১৭/১২/২০১২ তারিখে বিবাহ করি বিষয়টি আমাদের উভয় পরিবারের মধ্যে জানাজানি হয় অতঃপর আমার স্ত্রী তার পিতার বাড়িতে থাকে এবং পীরগঞ্জ মহিলা কলেজে লেখাপড়া করে এভাবে চলিতে থাকাবস্থায় আমি আমার স্ত্রীর সংসারে আসার জন্য চাপ সৃষ্টি করলে আমার শ্বশুর শোভা রাম রায় সহ তার পরিবারের লোকজনের আমার স্ত্রীকে আমার সংসারে না পাঠিয়ে আমার স্ত্রীকে বিভিন্ন প্রকার নানা রকম বুদ্ধি দিতে থাকে এবং আমার সাথে সম্পর্ক না রাখার জন্য মানসিক ভাবে চাপ দেয় এমতাবস্তায় বিগত কিছুদিন পূর্বে আমার স্ত্রীর ইচ্ছার বিরুদ্ধে অন্যত্র বিবাহের জন্য দিন তারিখ ধার্য করিয়াছেন।বর্তমান আমার শ্বশুরলায়ের লোকজন আমার স্ত্রীর সাথে আমার সাথে দেখা  করিতে দিতেছে না। তাই আমার শ্বশুরবাড়ির লোকজন যাহাতে
 আমার স্ত্রীকে অন্যত্র বিবাহ দিতে না পারে তার জন্য অভিযোগ করেন। এ বিষয়ে ১০নং জাবর হাট চেয়ারম্যান হুমায়ুনের কাছে মুঠোফোনে জানতে চাওয়া হলে তিনি বলেন লিখিত অভিযোগ পেয়েছি এবং মেয়ের পরিবারকে বিষয়টি অবগত করেছি মেয়ের পরিবার বিয়ের বিষয়টিকে অস্বীকার করেছেন।
%d bloggers like this: