লিভারের অতিরিক্ত চর্বি কমাতে ইফতারিতে যা খাবেন

অলসতার কারণে মৃত্যুর ঝুঁকি বাড়ছে। সুস্থ থাকতে হলে সবার ওজন নিয়ন্ত্রণে রাখা উচিত। ওজন নিয়ন্ত্রণে না রাখলে শরীরে বিভিন্ন রোগ বাসা বাঁধে। তাই অবশ্যই ওজন নিয়ন্ত্রণে রাখতে হবে।

আমাদের অনেকেরই একটি সমস্যা হচ্ছে লিভারে অতিরিক্ত চর্বি জমা হওয়া। লিভারে অতিরিক্ত চর্বি তাড়াতে সারা বছরই ডায়েট করেন অনেকে।

তবে রোজার মাসে খাওয়ার সময় পরিবর্তন হওয়ায় ডায়েটেও সময় পরিবর্তন হয়। তাই যাদের লিভারের অতিরিক্ত চর্বি রয়েছে তারা কীভাবে রোজায় ডায়েট করবেন?

আধুনিক জীবনযাত্রা, অনিয়মিত খাদ্যাভ্যাসের কারণে যেসব অসুখ সহজেই শরীরে বাসা বাঁধে তার অন্যতম ফ্যাটি লিভার।

চিকিৎসকদের মতে,আমাদের প্রত্যেকের লিভারেই একটা নির্দিষ্ট পরিমাণে চর্বি থাকে। সেটাই স্বাভাবিক। কিন্তু মাত্রাতিরিক্ত চর্বি জমে গেলে তা সমস্যার কারণ হয়ে দাঁড়ায়।

ফ্যাটি লিভারে আক্রান্তররা রোজায় যেসব খাবার নিয়ে সচেতন থাকবেন

১. যাদের লিভারের অতিরিক্ত চর্বি জমা হয়েছে তারা ইফতারে তেলেভাজা কোন খাবার খাবেন না

২. লিভারের অতিরিক্ত চর্বি থাকলে যদি দুধ খেতে চান, তবে ফ্যাট ফ্রি দুধ খেতে পারেন

৩. বিরিয়ানি, তেহারি, ফ্রাইড চিকেন খাবেন না

৪. মাছ বা মুরগির মাংস খেতে পারেন, তবে গরু, খাসির মাংস, ভেড়ার মাংস খাওয়া যাবে না

৫. ফল বা ফলের রস, সবজি, ভাত, ওটস, চিড়া ,খই, ছোলা, সুপ, সবজি খিচুড়ি (কম তেলে রান্না) থেতে পারেন৬. চিকেন স্যান্ডউইচ (মেয়নেজ ছাড়া), মোমো, ভাপে তৈরি পিঠা, চিতই পিঠা, প্যানকেক ইত্যাদি খেতে পারবেন।