Press "Enter" to skip to content

ব্রিজ ভেঙ্গে পড়ল ট্রলারের ওপর

নিরপেক্ষ ডেস্কঃ বরগুনার বেতাগী উপজেলায় বেড়ের ধন নদীতে ট্রলারের ওপর ভেঙ্গে পড়েছে একটি আয়রন ব্রিজ। মঙ্গলবার সন্ধ্যা ৭টার দিকে বেতাগী ও মির্জাগঞ্জ উপজেলার সংযোগ ব্রিজটি ভেঙ্গে পড়ে।

এতে মালামাল ভর্তি ট্রলারটি ডুবে যায়। তবে ট্রলারে থাকা লোকজন প্রাণে বেঁচে গেলেও মারাত্মক আহত হন ৬ জন। তাদের আশঙ্কাজনক অবস্থায় বরিশাল শেবাচিমে পাঠানো হয়েছে। হতাহতদের বেশিরভাগই কিশোর।

জানা গেছে, মালামাল ভর্তি ট্রলারটি নৌপথে আসার সময় সন্ধ্যা ঘনিয়ে আসলে অসাবধানবশত: ব্রিজটির আয়রণ খুঁটির সঙ্গে ধাক্কা লাগে। ফলে মুহূর্তের মধ্যেই ব্রিজটি ভেঙ্গে পড়ে ট্রলারের ওপর। লোকজন ও মালামালসহ ট্রলারটি ডুবে যায়।

স্থানীয় সূত্র জানায়, নদীর একপাশে বেতাগী উপজেলার হোসনাবাদ ইউনিয়নের ৩০ হাজার লোকের বসবাস ও অন্যপাড়ে মির্জাগঞ্জ উপজেলার আমগাড়াগাছিয়া ইউনিয়নসহ ডোমরাবাদ এলাকার প্রায় ২৫ হাজার লোকের বসবাস। নৌপথে চলাচলেরও একমাত্র মাধ্যম বেড়ের ধন নদী। ব্রিজটি ভেঙ্গে পড়ায় যোগাযোগ ব্যবস্থায় ব্যাপক বিপাকে পড়েছেন দুই পাড়ের মানুষ।

দুই পাড়ের বসবাসরত একাধিক বাসিন্দা বলেন,বহুদিন ধরেই ব্রিজটি ঝুঁকিপূর্ণ ছিল। আয়রণের খুঁটি ভেঙ্গে যাওয়ার ফলে দেবে যায় ব্রিজটি। ভারী যান চলাচলে অযোগ্য হলেও লোকজন চলাচল করতে পারত। এখন ব্রিজটি ভাঙ্গার ফলে নৌপথ ও সড়কপথের যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন হয়ে গেছে।

ট্রলারটির মালিক আহত মো. সালাউদ্দিন বলেন, এলাকার ধান ক্রয় করে যাওয়ার পথে সন্ধ্যা ঘনিয়ে আসলে কুয়াশার জন্য ট্রলারচালক ব্রিজের খুঁটি দেখতে না পেয়ে দুর্ঘটনাটি ঘটে। ট্রলারে থাকা সবাই আহত হয়েছেন। আশঙ্কাজনক যারা তাদের বরিশাল হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

তিনি বলেন, ট্রলারও গেল ব্যবসাও শেষ হয়ে গেল একদম পথে বসে গেলাম। তারপরও শুকরিয়া যে সবাই প্রাণে বেঁচে ফিরেছি। ভাঙ্গা ব্রিজের নিচ থেকে ট্রলারটি উদ্ধারের চেষ্টা করা হচ্ছে বলে জানা গেছে।

তবে বেতাগী উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. রাজিব আহসান বলেন,অচিরেই এই সমস্যার সমাধান করা হবে।

%d bloggers like this: